Technology

Best New Technology 2021 – নতুন প্রজন্মের টেকনোলজি নিয়ে কিছু কথা

Best New Technology 2021 – নতুন প্রজন্মের টেকনোলজি নিয়ে কিছু কথা। 2021 সালে সে যে আমাদের টেকনোলজি (Best New Technology 2021) কতটা উন্নত হয়েছে তা আপনি কল্পনাও করতে পারবেন না যুগের ধারাবাহিকতায় আমাদের প্রযুক্তি এখন অনেক উন্নত হয়েছে। দিন যতই এগিয়ে যাচ্ছে প্রযুক্তি ততটাই আরো ডেভলপ করতেছে। নিজের অজান্তেই আমরা দৈনন্দিন কাজে ব্যবহারের জন্য প্রচুর প্রযুক্তি ব্যবহার করে থাকি। খাবার ক্রিয়া থেকে শুরু করে নিষ্কাশন পর্যন্ত প্রতিটি কাজের পেছনেই আছে প্রযুক্তির অবদান।

আপনি যদি খেয়াল করেন তাহলে দেখে থাকবেন, আপনি আপনার দৈনন্দিন জীবনে যা যা করে আসছেন, তার সব কিছুতেই আছে প্রযুক্তির অবদান। আপনি খাবার খাবেন? তার জন্য তো আগে রান্না করতে হবে, চুলা লাগবে, চুলা কি দিয়ে তৈরী? প্রযুক্তি। আপনি বাসায় বসে খবর দেখবেন? টিভিতে দেখবেন, সেটাও প্রযুক্তির অবদান। দূরের কারো সাথে কথা বলবেন? ফোন – সেটাও টেকনোলজির তৈরী। মোট কথা আমাদের অজান্তেই আমরা টেকনোলজির কাছে অনেক ঋণী হয়ে পরছি।

দেশ-বিদেশের কোথায় কি হচ্ছে, তা আপনি অনায়াসেই একটি বাটন চেপে টিভি অন করেই দেখতে পারছেন, জানতে পারছেন। আজকাল আর কাঊকে চিঠি পাঠানোর জন্য ডাকের প্রয়োজন হয়না, মোবাইলে একটা ই-মেইলের মাধ্যমেই সেটা করা সম্ভব। আমাদের উচিত সকল বিজ্ঞানীদের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হওয়া।

Best New Technology 2021 – টেকনোলজি অব ২০২১

এখন যদি আপনার মনে হয়ে থাকে যে আপনি (Best New Technology 2021) টেকনোলজির অবদান ছাড়াই এই পৃথিবীতে আপনাদ অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে পারবেন, তাহলে আপনি ভুল ভাবছেন। কারণ একটু খেয়াল করলেই আপনি দেখতে পারবেন আপনি প্রতি নিহত যে কাজগুলো করছেন তার সাথে কোন না কোনভাবে টেকনোলজির অবদান জড়িয়ে আছে। আপনি চাইলেই সেটিকে এড়িয়ে যেতে পারবেন না। কারণ আপনি সেটি থেকে সুবিধা ভোগ করছেন।

কি কি কারণে টেকনোলজি ব্যবহার করা হয়? (Best New Technology 2021)

আমাদের নিত্য নৈমিত্তিক প্রায় সকল কাজেই আমরা ইন্টারনেটের ব্যবহার করে থাকি। শুধু মাত্র ইন্টারনেট ব্যবহার করি তা না। এই ইন্টারনেট মূলত টেকনোলজি (Best New Technology 2021) একটি নতুন আবিষ্কার। এই জন্য আমরা বিজ্ঞানীদের কাছে চির কৃতজ্ঞ। কারণ তারাই একমাত্র এই পৃথিবীর চাকা সামনের দিকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। তাদের এই সকল প্রচেষ্টা আমাদের বিভিন্ন নতুন নতুন উদ্ভাবনে সহায়তা করে। আমরা সেগুলো ব্যবহার করে আমাদের নিত্য নৈমিত্তিক জীবনকে আরও উন্নত এবং সহজলভ্য করে তুলছি।

  • রান্নার কাজে
  • চিকিৎসার ক্ষেত্রে
  • শিক্ষার ক্ষেত্রে
  • কলকারখানায়
  • খাদ্য সংরক্ষণ

রান্নার কাজে

আগে যখন বিদ্যুৎ ছিল না তখন মানুষজন মাটির চুলায় রান্না করতো। কাঠ কিংবা বিভিন্ন ধরনের খড় দিয়ে মানুষ যখন রান্না করত। মাটির চুলায় এভাবে রান্না করাটা অনেকটা ব্যয়বহুল এবং কষ্টসাধ্য ব্যাপার ছিল। কিন্তু যখন আমাদের পৃথিবীতে বিদ্যুৎ এর আবির্ভাব হলো, মানে আমাদের বিজ্ঞানীরা যখন বিদ্যুৎ আবিষ্কার করল, তখন আমরা আমাদের এই কাজকে আরও সহজভাবে করতে সক্ষম হলাম।

আমরা এখন বিভিন্ন ধরনের যন্ত্র ব্যবহার করে থাকি রান্নার কাজে। যেমনঃ- মাইক্রোওয়েভ, রেফ্রিজারেটর, ওভেন, গ্যাস সিলিন্ডার ইত্যাদি। (Best New Technology 2021) টেকনোলজির অবদানে প্রাপ্ত এই বিভিন্ন যন্ত্রাংশ গুলো আমাদের রান্নার কাজকে আরও সহজ থেকে সহজতর করতে সক্ষম হয়েছে। আমরা এখন অনেক আনন্দের সরকারের কাজ করতে পারি এবং খুব অল্প সময়ের ভিতর করতে পারি।

চিকিৎসার ক্ষেত্রে

বিদ্যুতের আবিষ্কার চিকিৎসা ক্ষেত্রে আরও একটি নতুন ধাপে এগিয়ে নিয়ে যেতে সক্ষম। চিকিৎসা ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ এর অবদান অনেক। আগের দিনে রোগের নিরাময় তো দূর, রোগের তদন্ত করতে করতেই রোগীর নাজেহাল অবস্থা হয়ে যেত। তার পরেও সুষ্ঠু কোনো সিদ্ধান্তে পৌছানো যেত না।

কিন্তু বিদ্যুৎ আবিষ্কারের পর থেকেই যখন চিকিৎসা ক্ষেত্রেও এটার ব্যবহার আমরা দেখতে পারি, তখন খুবই আশ্চর্য হলাম। কারণ এর মাধ্যমে আমরা রোগ নির্ণয় থেকে শুরু করে, রোগীর অপারেশন পর্যন্ত করে থাকি। এখন বিদ্যুৎ ছাড়া যেন কোন হাস্পাতাল কল্পনাই করা যায়না। তাই এই ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ অনেক বেশি ভূমিকা রাখে।

শিক্ষার ক্ষেত্রে

আমাদের বাংলাদেশের আর্থসামাজিক কাঠামো অবস্থা অনুযায়ী আমাদের যে মৌলিক পাঁচটি বিষয় আছে তার মধ্যে শিক্ষা অন্যতম। বাংলাদেশ সরকার শিক্ষিত জাতি গঠনের চেষ্ঠা করে আসছে। “শিক্ষার আলো, ঘরে ঘরে জ্বালো” নামে বিভিন্ন প্রচার প্রচারণা এবং স্লোগান জারি করেছে। আমাদের দেশে মেয়েদেরকে অনেকটাই ছোট করে দেখা হয়। তার জন্য বাংলাদেশ সরকার, মেয়েদের শিক্ষা পুরোপুরি ভাবে ফ্রী করে দিয়েছে। এছাড়াও সব ক্ষেত্রেই মেয়েদের অগ্রাধিকার দেওয়া হয়ে থাকে – শিক্ষার ক্ষেত্রে।

একটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের চালানোর জন্য কি ইলেকট্রিসিটির প্রয়োজন পরে না? অবশ্যই পরে। বাতি, ফ্যান, মোটর ইত্যাদি চালানোর জন্য আমাদের ইলেকট্রিসিটির প্রয়োজন হয়। আর এই সকল জিনিসে আমাদের শিক্ষা প্রতিষ্ঠান কাজে লাগে। তার জন্য শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ক্ষেত্রে বিদ্যুৎ এর অবদান অনেকটা বেশি এবং অনেক গুরুত্বপূর্ণ।

কলকারখানায়

কলকারখানায় সবচাইতে বেশি টেকনোলজি (Best New Technology 2021) ব্যবহার করা হয়। প্রত্যেকটা এবং বালিকণা থেকে শুরু করে কলকারখানায় ব্যবহৃত সকল ধরনের যন্ত্রপাতি তৈরি তা আমাদের টেকনোলজির অবদান রয়েছে। একদিক থেকে (Best New Technology 2021) টেকনোলজি যেমন আমাদের কাজকে অনেক সহজ করে দিয়েছে। ঠিক তেমনি ভাবে এই টেকনোলজির কারণে, এই অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি সৃষ্টির কারণে, অনেকেই বেকার হয়ে যাচ্ছে।

কারণ যেখানে একটি কাজ করতে 10 জন লোকের প্রয়োজন হতো, সেখানে এখন এই টেকনোলজির সুবাধে নতুন আবিষ্কৃত মাত্র একটি যন্ত্রের সাহায্যে 10 জনের কাজ করে নেওয়া যাচ্ছে। সে ক্ষেত্রে এই ১০ জন লোককে বেকার অবস্থায় থাকতে হচ্ছে। তারা চাকরি, তথাপি জীবিকা হারাচ্ছে।

তাই আমাদের উচিত কলকারখানায় এতো নতুন নতুন যন্ত্রপাতি ব্যবহার না করে যেখানে আমাদের মানুষ দিয়েই কাজ চালিয়ে নেওয়া যায় সেখানে আমরা মানুষ ব্যবহার করব, কর্মচারী ব্যবহার করব। সে ক্ষেত্রে আমরা সবাই মিলেমিশে জীবিকা নির্বাহ করতে পারব এবং পৃথিবীতে আমাদের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখতে সক্ষম হব।

খাদ্য সংরক্ষণ

খাদ্য সংরক্ষণের জন্য যে আমরা রেফ্রিজারেটর ব্যবহার করি সেটি কিন্তু আমাদের টেকনোলজি (Best New Technology 2021) অবদান। কারণ এই রেফ্রিজারেটর এর সাহায্যে আমরা বিভিন্ন ফলমূল, শাকসবজি, তরিতরকারি এবং বিভিন্ন ধরনের ড্রিংক্স রেখে দেই। অনেক দিন পর্যন্ত এটি আমাদের খাদ্যদ্রব্যকে সুরক্ষিত রাখে এবং আমাদের স্বাস্থ্যের খেয়াল রাখে।

শেষ কথা

আজকের মত এখানেই সমাপ্ত করি। দেখা হবে পরবর্তী কোনো পোস্টে, নতুন কোনো টপিকের সাথে। আশা করছি তত দিন আমাদের পাশেই থাকবেন এবং ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন। আল্লাহ হাফেজ।

Abella

I am a blogger. I love to write content on the blog site. I have 2 years of experience in content writing on a blog website.

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button